ফুটবল একটি দলগত খেলা। এটি বৈশ্বিকভাবে ব্যাপক পরিচিত ও জনপ্রিয় খেলা। এটি আন্তর্জাতিক ফুটবল ফেডারেশন (ফিফা) কর্তৃক পরিচালিত ক্রীড়ার আনুষ্ঠানিক নাম।

একবিংশ শতকে এসে ফুটবল খেলা দুই শতাধিক দেশের ২৫০ মিলিয়নেরও অধিক খেলোয়াড় খেলে থাকেন। এর ফলে ফুটবল বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় ও প্রচলিত খেলা হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে

ভারতীয় ফুটবলারদের কোচের নাম

ভারত বলাইদাস চ্যাটার্জি (১৯৪৮)
ভারত সৈয়দ আবদুল রহিম (১৯৫১–১৯৫২)
ভারত বলাইদাস চ্যাটার্জি (১৯৫৩)
ভারত সৈয়দ আবদুল রহিম (১৯৫৪)
ভারত বলাইদাস চ্যাটার্জি (১৯৫৪)
ভারত সরোজ বোস (১৯৫৫)
ভারত সৈয়দ আবদুল রহিম (১৯৫৬–১৯৬২)
ভারত টি সোম (১৯৫৮)
ভারত শৈলেন মান্না (১৯৬১)
ভারত জিএম পেন্তিয়াহ (১৯৬৩)
ইংল্যান্ড হ্যারি রাইট (১৯৬৪)
ভারত মুহাম্মদ হুসাইন (১৯৬৪–১৯৬৭)
ভারত শচীন্দ্রনাথ মিত্র (১৯৬৬)
ভারত এসআর দেব (১৯৬৭)
ভারত শৈলেন মান্না (১৯৬৮)
ভারত জর্নৈল সিং (১৯৬৯)
ভারত জিএমএইচ বাশা (১৯৭০–১৯৭১)
ভারত পি. কে. ব্যানার্জি (১৯৭২–১৯৭৪)
ভারত জর্নৈল সিং (১৯৭৬)
ভারত সাহু মেওয়ালাল (১৯৭৭)
ভারত জিএমএইচ বাশা (১৯৭৭)
ভারত অরুণ ঘোষ (১৯৭৮)
ভারত জিএমএইচ বাশা (১৯৮০)
ভারত পি. কে. ব্যানার্জি (১৯৮১–১৯৮২)

ইংল্যান্ড বব বুটল্যান্ড (১৯৮২)
প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড জো কিনিয়ার (১৯৮৩)
যুগোস্লাভিয়া সমাজতান্ত্রিক যুক্তরাষ্ট্রীয় প্রজাতন্ত্র মিলোভান চিরিচ (১৯৮৪–১৯৮৫)
ভারত অরুণ ঘোষ (১৯৮৫)
ভারত পি. কে. ব্যানার্জি (১৯৮৫–১৯৮৬)
ভারত সৈয়দ নাইমুদ্দিন (১৯৮৭−১৯৮৯)
হাঙ্গেরি জোজেফ গেলেই (১৯৯০–১৯৯১)
ভারত ডেরেক ডি’সুজা (১৯৯২–১৯৯৩)
চেক প্রজাতন্ত্র জিরি পেশেক (১৯৯৩−১৯৯৪)
উজবেকিস্তান রুস্তম আকরামভ (১৯৯৫−১৯৯৬)
ভারত সৈয়দ নাইমুদ্দিন (১৯৯৭–১৯৯৮)
ভারত সুখবিন্দর সিং (১৯৯৯–২০০১)
উজবেকিস্তান ইসলাম আহমেদভ (২০০১)
ইংল্যান্ড স্তেফান কোন্সতান্তিনে (২০০২–২০০৫)
ভারত সুখবিন্দর সিং (২০০৫)
ভারত সৈয়দ নাইমুদ্দিন (২০০৫–২০০৬)
ইংল্যান্ড বব হিউজটন (২০০৬–২০১১)
ভারত আরমান্দো কোলাকো (২০১১
ভারত সাভিও মেদেইরা (২০১১–২০১২)
নেদারল্যান্ডস উইম কোভারম্যান্স (২০১২–২০১৫)
ইংল্যান্ড স্তেফান কোন্সতান্তিনে (২০১৫–২০১৯)
ক্রোয়েশিয়া ইগর স্তিমাৎস (২০১৯−বর্তমান)