ভালো ছবি তুলতে ভালোবাসেন? কিংবা মোবাইলে ফটোগ্রাফি করতে ভালবাসেন! তবে ছবি তোলার এই গুরুত্বপূর্ন কৌশল আপনাদের কাজে আসবে। প্রত্যেকে আপনার ছবির প্রশংসা করবেই। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই কৌশল গুলো।

মোবাইল ফোনে সব থেকে বেশি আমরা ফোনের ক্যামেরাই ব্যাবহার করি। মানে সোজা কথায় বললে এই যে আমরা ফোন ফটোগ্রাফিতেই বেশি মন দি। আর এই সময়ে সোশাল মিডিয়ার বার বারন্তের যুগে সবাই সব কিছু সব সময়ে আপডেট দিয়ে যেতে চায় আর এর জন্য স্মার্টফোনে ছবি তোলা আর সোশাল মিডিয়াতে তা শেয়ার করা হয়ে থাকে। এই সময়ে স্মার্টফোনের ক্যামেরাও দারুন হয়,। তবে আজকে আমরা আপনাদের স্মার্টফোনের ছবি তোলার কিছু ট্রিক বলব। মানে সোজা কথা মোবাইল ফটোগ্রাফি ভাল করার কিছু উপায়।

মোবাইল ফটোগ্রাফির জন্য গুরুত্বপূর্ন টিপস

যতেষ্ট আলোর প্রয়োজন-

একটি ভাল ছবি তোলার জন্য সব সময়ে ভাল লাইটের দরকার হয়। যেমন এখানে ছবিটি যদি দেখেন তবে দেখতে পারবেন যে সূর্যের আলো দেখা গেছে। ভাল ছবি তোলা অভ্যেস করার জন্য সূর্য ওঠার পরে ছবি তোলা প্র্যাক্টিস করুন কারন সূর্যাস্তের পরে লাইটিংয়ের সমস্যা হতে পারে।

Zooming য়েরে খেয়াল রাখুন

স্মার্টফোনের ছবি তোলার সময়ে জুমিং একটি দরকারি বিষয়। আর আপনারা যদি কোন সাব্জেক্টকে ক্যাপচার করতে চান তবে জুমিংয়ের জন্য মুভ করে ফোনের জুম ব্যাবহার করুন। যা আপনাদের ছবি একটু হেজি করে। এর কারন লেন্স সাইজ। বড় লেন্সের জুম ইমেজ অনেক বেশি ক্লিয়ার হয়।

মুভিং অব্জেক্ট ক্যাপচার করার উপায়

অনেক সময়ে আমাদের আসে পাসে মুভিং অব্জেক্ট থাকে আর এই সময়ে ছবি তোলার সময়ে আমাদের ক্যামেরা সেট করতে অনেক স্ম্যমে সমস্যা হয় আবার এর মধ্যেই সেই মুভিং জিনিস সেখান থেকে চলে যায়।
ডিভাইস ভার্টিকালি ধরুন
ছবি তোলার সময়ে ডিভাইস ভার্টিকালি ধরুন কারন এই ভাবে আপনি ওয়াইড ফ্রেম পাবেন আর ভাল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ছবি পাবেন।
মুভিং অব্জেক্ট
মুভিং অব্জেক্ট নেওয়ার সময়ে বার্স্ট মোড ব্যাবহার করুন কারন এই ভাবে আপনার স্পেসে ভাল ছবি পাবেন।
ট্রাইপড ব্যাবহার
আর আপনারা যদি একটি ছবি শুট করেন আর সেখানে ছবি চান তবে ট্রাইপড ব্যাবহার করুন যা স্টেবিলিটি দেবে।

অ্যাঙ্গেল বদলে ছবি
আপনারা ছবি তোলার সময়ে ভাল শটের জন্য অ্যাঙ্গেল বদলে ছবি নিন তাতে আপনারা সাব্জেক্ট ভাল করে ক্যাপচার করতে পারবেন।
এর জন্য আপনাকে ভকাল শটের জন্য গ্রাউন্ডে যেতে হবে আর একটি ভাল দেখে সাব্জেক্ট নিতে হবে। আর এই ভাবে আপনাদের দৃষ্টিকোন বদলে নতুন ছবি নিন। সাব্জেক্ট যত বেশি অ্যাঙ্গেল থেকে ক্যাপচার করতে পারবেন তত ভাল।
ক্যামেরা অ্যাপ
মোবাইল ফটোগ্রাফির জন্য ভাল ছবি একটি প্রধান কারন আর স্মার্ট ফোনে এর জন্য ডেডিকেটেড ক্যামেরা অ্যাপ থাকে। এই অ্যাপের থেকে আপনারা এডিটিং করে অনেক সহজে অ্যাপের মাধ্যমে ছবি লাইটিং, অন্য ডিটেলস ইত্যাদি ঠিক করতে পারবেন। আর অ্যাপের মাধ্যমে আপনারা কোন ফটো বা টেক্সট যুক্ত করতে পারবেন আর একটি নতুন লুক দিতে পারবেন।
এই জন্য ছবি পোস্ট করার আগে এক বার ভাল করে অ্যাপ দেখে বেছে নিন আর নিজের ছবি ভাল এডিটিং করুন।

ফোনের বেশি স্টোরেজ আর ভাল ব্যাটারি লাইফ
অনেক সময়ে ছবি তোলার সময়ে ভাবা হয় যে কত বেশি ছবি তোলা হচ্ছে তা দেখা দরকার কিন্তু বাস্তব তা নয়। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এই যে কোন ছবি আপনারা তুলতে চাইলে তার কোয়ালিটির খেয়াল করুন যে তা আপনারা কত ভাল ভাবে অনেক শটের মধ্যে থেকে নিতে পারবেন। তবে এর জন্য আপনার ফোনের বেশি স্টোরেজ আর ভাল ব্যাটারি লাইফ থাকতে হবে।
লেন্স পরিষ্কার
আপনাদের ভাল ছবি তোলার জন্য ফোনের ক্যামেরার লেন্স পরিষ্কার করতে হবে। পরিষ্কার লেন্স না হলে শট ভাল আসবে না। একটি পরিষ্কার লেন্স থেকে ছবি তুললে আর নোংরা লেন্সের ছবির পার্থক্য সহজেই চোখে পড়বে।
স্মার্টফোনে ফ্ল্যাশ
আপনার স্মার্টফোনে ফ্ল্যাশ থাকলে ফ্ল্যাশ ডিজিটাল ক্যামেরার মতন থাকলে তা বেশ মজার। আর ফ্ল্যাশ শেডের সঙ্গে একাধিক ছবি তুলে এক্সপেরিমেন্ট করতে থাকুন। একটি ছবি ফ্ল্যাশ ছাড়া তুলে আর একটি ফ্ল্যাশ দিয়ে তুলে দেখতে থাকুন।
ফোনের ফোকাস সেট করুন  
এই সময়ে ফোনের ক্যামেরা অটোমেটিকালি ফ্রেম অনুসারে সাব্জেক্ট ফোকাস করে আর এর আগে ছবির সাব্জেক্ট ফোন সিলেক্ট করে ,অনেক সময়ে ফোকাস ঠিক হয়না। এর জন্য এটি নিশ্চিত করার জন্য নিজের ক্যামেরা অ্যাপ ওপেন করে সাব্জেক্ট শার্প ভিউয়ের জন্য স্ক্রিনে ট্যাপ করুন। আর এই ভাবে আপনারা সঠিক ফোকাসের ছবিতে ক্লিক করতে পারবেন।
ক্যান্ডিট শট
আপনি যদি নিজের বন্ধু, পরিবার বা কারো ভাল কোন মুহূর্ত ক্যাপচার করত চান তবে ক্যান্ডিট শট একটি ভাল অপশান। আচমকা নেওয়া এই ধরনের ছবি তুলে দেখা যায় যা ভাল ছবি ও ন্যাচারাল ছবি পাওয়া যাবে।

এটিও পড়ুন – স্মার্ট ফোনে ছবি তোলার জন্যে সবচেয়ে ভাল অ্যাপ

Leave a Reply

Your email address will not be published.